কীর্তনের আসরে একদিন

আসর ভরা নারী-পুরুষ,গাইছে ভালো শিবু কীর্তনিয়া—বাহুলগ্ন তুমি ও আমি আবেগে আপ্লুত শিবু যখন বিস্তারিলো রাধার পরকীয়া হঠাত্ দেখি তোমার হাত আমার মুঠোচ্যূত!দূরের কোনো বাদাড় থেকে বুনো-ফুলের ঘ্রাণশুঁকতে গিয়ে চেনা গোলাপ ঠেকছিল কি বাসী? শিবুর সুরে শুনছিলে কি বেগানা আহ্বান?পাশের কোনো বাড়িতে বাজে ব্রজের পোড়া বাঁশি!সেই যে কবে তোমার চোখে পদ্মদীঘি দেখেভেবেছিলাম এর গহিনে রত্ন আছে জমাডুব-সাঁতারে অতল জলে তুলতে গিয়ে একে হাতড়ে দেখি কিছু তো নেই, ক্লেদজ নর্দমা!