default-image

ইউনাইটেডের হয়ে আর খেলবেন কি না, সে ধোঁয়াশা দূর করতেই হয়তো ইনস্টাগ্রামে একটি পোস্ট দেন পর্তুগাল তারকা। যেখানে স্পষ্ট ইঙ্গিত, আগামীকাল রায়ো ভায়েকানোর বিপক্ষে ইউনাইটেডের প্রীতি ম্যাচে খেলবেন তিনি। পোস্টে রোনালদো লিখেছেন, ‘রাজা রোববার খেলবে!’

৩৭ বছর বয়সী রোনালদো ইউনাইটেডের প্রাক্-মৌসুম প্রস্তুতিতে এখনো একটি ম্যাচও খেলেননি। কেন খেলছেন না রোনালদো, এর ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে পর্তুগিজ তারকার পারিবারিক কারণ দেখিয়ে এসেছে ইউনাইটেড।

default-image

প্রস্তুতি ম্যাচে না হয় খেললেন না, কিন্তু ইউনাইটেড যখন থাইল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়া সফর থেকে ফিরে অনুশীলন শুরু করেছে, তখনো তো রোনালদোকে দলের সঙ্গে অনুশীলন করতে দেখা যায়নি। কয়েক দিন আগে রোনালদোকে ইউনাইটেডেরে অনুশীলন মাঠে দেখা গেল তাঁর এজেন্ট জর্জ মেন্দেসের সঙ্গে।

সেখানে রোনালদো গিয়েছিলেন আসলে নিজের ভবিষ্যৎ নিয়ে ইউনাইটেডের কর্তাব্যক্তিদের সঙ্গে আলোচনা করতে। সেই আলোচনায় রোনালদো আর ইউনাইটেড, দুই পক্ষই নিজেদের অবস্থানে অনড় ছিল। রোনালদোকে বোঝাতে সেই আলোচনায় নিয়ে আসা হয়েছিল দলটির কিংবদন্তি কোচ অ্যালেক্স ফার্গুসনকে। কিন্তু কাজ হয়নি এতেও।

তবে কাল রোনালদোর ভবিষ্যৎ নিয়ে সর্বশেষ সংবাদ দিতে গিয়ে টেন হাগ বলেছেন, ‘হ্যাঁ, সে এ মৌসুমের পরও এখানে থাকতে পারে। সত্যি বলতে কি, আমি তো এখানে তিন বছরের জন্য চুক্তি করেছি। ফুটবলে এটা ছোট একটা সময়ই। আমাদের শুরু থেকেই জিততে হবে। তাই আমি খুব বেশি দূরের ভবিষ্যতে তাকাচ্ছি না।’

এক দিনের ব্যবধানে কী এমন হলো যে টেন হাগ বলে দিলেন—রোনালদো এ মৌসুমের পরও ইউনাইটেডে থাকতে পারেন। আর রোনালদোও ইউনাইটেডের হয়ে মাঠে নামবেন বলে ঘোষণা দিয়ে দিলেন! তবে ফুটবলের দলবদলে শেষ বলে কিছু নেই। এখন দেখা যাক, শেষ পর্যন্ত কী হয়!

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন