গ্রুপ ‘বি’

পোর্তো ০: ৪ ব্রুগা

টানা দুই জয়ে দ্বিতীয় রাউন্ডের পথে বেশ এগিয়ে গেল বেলজিয়ামের ক্লাব ব্রুগা। আগের ম্যাচে লেভারকুসেনকে ১-০ গোলে হারানোর পর গত রাতে পোর্তোর জালে ৪ গোল দিয়েছেন ব্রুগা। একটা করে গোল করেছেন ফেরান জুৎগ্লা, সোয়াহ, স্কভ ওলসেন ও ১৭ বছর বয়সী আন্তোনিও নুসা।

জেনে রাখা ভালো: চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপ পর্বে নিজেদের প্রথম দুই ম্যাচেই জয় পাওয়া প্রথম বেলজিয়ান ক্লাব ব্রুগা।

লেভারকুসেন ২: ০ আতলেতিকো মাদ্রিদ

আগের ম্যাচে আতলেতিকো শেষ মুহূর্তে গোল করে জিতেছিল পোর্তোর সঙ্গে। কাল সেই আতলেতিকোর জালে শেষ মুহূর্তে ২ গোল করে জিতেছে লেভারকুসেন। ৮৪ ও ৮৭ মিনিটে গোল দুটি করেছেন অ্যান্ডরিখ ও দিয়াবি।

জেনে রাখা ভালো: চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপ পর্বে নিজেদের  মাঠে সর্বশেষ ৬ ম্যাচের ৫টিতে জিতেছে লেভারলুসেন, ড্র করেছে অন্যটি।

default-image

গ্রুপ ‘সি’

প্লজেন ০: ২ ইন্টার মিলান

default-image

এডিন জেকো একটি গোল করেছেন, ডেনজেল ডামফ্রাইসকে দিয়ে করিয়েছেন আরও একটি। আর তাতেই প্লজেনের বিপক্ষে ২-০ গোলে জিতেছে ইন্টার মিলান। ৬১ মিনিটে পাভেল বুচা লাল কার্ড দেখায় ম্যাচের বাকি সময়টা ১০ জন নিয়ে খেলেছে প্লজেন।

জেনে রাখা ভালো: ইউরোপিয়ান প্রতিযোগিতায় প্লজেনের বিপক্ষে ৯ ম্যাচে ৬ গোল জেকোর। প্লজেনের মাঠে এটি ইতালিয়ান কোনো ক্লাবের প্রথম জয়।

বায়ার্ন ২: ০ বার্সেলোনা

default-image

লেভানডফস্কির মিউনিখে ‘প্রত্যাবর্তন’ সুখকর হলো না মোটেও। বার্সেলোনার জার্সিতে সহজ সুযোগ পেয়েও লেভা কাজে লাগাতে পারেননি। ওদিকে লুকা হার্নান্দেজ ও লেরয় সানের গোলে বায়ার্ন মিউনিখ জিতে নেয় ম্যাচ। জার্মান চ্যাম্পিয়নদের কাছে এটি বার্সেলোনার টানা পঞ্চম হার।

জেনে রাখা ভালো: চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপ পর্বে নিজেদের মাঠে বায়ার্নের সর্বশেষ ৪ ম্যাচেই গোল করেছেন সানে।

default-image

গ্রুপ ‘ডি’

স্পোর্তিং লিসবন ২: ০ টটেনহাম

default-image

নিজেদের ১১৬ বছরের ইতিহাসে এই প্রথম কোনো ইংলিশ ক্লাবের বিপক্ষে জয় পেল পর্তুগালের স্পোর্তিং লিসবন। নিজেদের মাঠে ম্যাচে দুটি গোল করেছে লিসবন, দুটিই যোগ হওয়া সময়ে। গোলদাতা—পলিনিও ও আর্থার গোমেজ।

জেনে রাখা ভালো:  ইউরোপিয়ান প্রতিযোগিতায় প্রতিপক্ষের মাঠে সর্বশেষ ৬ ম্যাচে জয়হীন টটেনহাম।

মার্শেই ০: ১ ফ্রাঙ্কফুর্ট

প্রথমার্ধের শেষ দিকে জেসপার লিন্ডসট্রমের একমাত্র গোলটাই শেষ পর্যন্ত ম্যাচে দুই দলের ব্যবধান হয়ে গেছে। মার্শেইয়ের এটি টানা দ্বিতীয় হার, ফ্রাঙ্কফুর্টের প্রথম জয়।

জেনে রাখা ভালো: ইউরোপিয়ান প্রতিযোগিতায় প্রতিপক্ষের মাঠে সর্বশেষ ৭ ম্যাচে অপরাজিত ফ্রাঙ্কফুর্ট।

default-image
ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন