গোলবারের নিচে এমিলিয়ানো মার্তিনেজের থাকাটা নিশ্চিত। তাঁর সামনে যে তিনজন রক্ষণ প্রাচীরের কাজ করবেন, তাঁরা কারা?

আর্জেন্টিনার সংবাদমাধ্যমের বিশ্লেষণ অনুযায়ী মার্তিনেজের সামনে সেন্টারব্যাক হিসেবে খেলবেন ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ক্লাব টটেনহামের ক্রিস্তিয়ান রোমেরো। তাঁর বাঁ পাশে থাকবেন বেনফিকার লেফটব্যাক নিকোলাস ওতামেন্দি আর রাইটব্যাক হিসেবে আতলেতিকো মাদ্রিদের নাহুয়েল মলিনা।

মাঝমাঠে স্কালোনির চার সেনানি মার্কোস আকুনিয়া, রদ্রিগো দি পল, লিয়ান্দ্রো পারেদেস ও আলেক্সিস মাকআলিস্তার। আকুনিয়ার যেহেতু লেফটব্যাক হিসেবে খেলার অভিজ্ঞতাও আছে, তাই মাঝমাঠ থেকে তিন ডিফেন্ডারকে রক্ষণে সহায়তার ভূমিকায়ও দেখা যাবে তাঁকে।

মাঝমাঠ থেকে খেলা তৈরির মূল কাজটা থাকবে ২৩ বছরের তরুণ মাকআলিস্তারের ওপর। তাঁকে এ কাজে সঙ্গ দেবেন রদ্রিগো দি পল। আর জুভেন্টাসের ২৮ বছর বয়সী লিয়ান্দ্রো পারেদেস থাকবেন রক্ষণাত্মক মিডফিল্ডারের ভূমিকায়।

প্রতিভায় ঠাসা আর্জেন্টিনার আক্রমণভাগে লিওনেল মেসির সঙ্গে কাকে রাখবেন স্কালোনি? পাওলো দিবালা চোট থেকে সেরে উঠলেও ম্যাচ অনুশীলনের অভাব আছে। এ ছাড়া মেসির সঙ্গে তাঁর পজিশন মিলে যায় বলে শুরুর একাদশে দিবালার না থাকারই কথা। সে ক্ষেত্রে মেসির সঙ্গে আর্জেন্টিনার আক্রমণভাগে খেলার বেশি সম্ভাবনা আনহেল দি মারিয়া আর লাওতারো মার্তিনেজের।

সৌদি আরবের বিপক্ষে আর্জেন্টিনার সম্ভাব্য শুরুর একাদশ

গোলকিপার: এমিলিয়ানো মার্তিনেজ

ডিফেন্ডার: নাহুয়েল মলিনা, ক্রিস্তিয়ান রোমেরো, নিকোলাস ওতামেন্দি
মিডফিল্ডার: মার্কোস আকুনিয়া, রদ্রিগো দি পল, লিয়ান্দ্রো পারেদেস, আলেক্সিস মাকআলিস্তার

ফরোয়ার্ড: লিওনেল মেসি, লাওতারো মার্তিনেজ, আনহেল দি মারিয়া