বিশ্বকাপের পর গালের জায়গায় কাকে বসানো হবে তা গত বছরের এপ্রিলেই ঠিক করে রেখেছিল ডাচ ফুটবল ফেডারেশন। ফিরিয়ে আনার কথা ছিল রোনাল্ড কোমানকে। কাল দ্বিতীয় মেয়াদে আনুষ্ঠানিকভাবে নেদারল্যান্ডস জাতীয় দলের কোচের দায়িত্ব নিয়েছেন কোমান। দায়িত্ব নিয়েই কোমানের প্রতিশ্রুতি, নেদারল্যান্ডসের খেলাকে আকর্ষণীয় করবেন ও আক্রমণাত্মক মনোভাব ফিরিয়ে আনবেন। তাঁর সঙ্গে চুক্তিটা কত বছরের তা এখনো জানা যায়নি।

কাতার বিশ্বকাপে রক্ষণাত্মক কৌশলের জন্য সমালোচিত হন ফন গাল। ডাচ সংবাদমাধ্যমে এ নিয়ে সমালোচনা হয়। নেদারল্যান্ডস জাতীয় দলের অফিশিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্টে কাল রাতে কোমানকে নিয়োগ দেওয়ার খবরটি নিশ্চিত করা হয়। কোমানের সই করার ছবি পোস্ট করে ‘অরেঞ্জ’দের পোস্টে লেখা হয়, ‘সই হয়ে গেল। স্বাগতম রোনাল্ড কোমান।’

নেদারল্যান্ডসের হয়ে খেলোয়াড় হিসেবে ইউরো এবং বার্সেলোনার হয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগজয়ী ৫৯ বছর বয়সী সাবেক এ মিডফিল্ডার নিজেও টুইট করে আনুষ্ঠানিক দায়িত্ব নেওয়ার খবরটি নিশ্চিত করেন, ‘পরিচিত জায়গাতেই নতুন অধ্যায় শুরু করছি।’

২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারিতে প্রথম মেয়াদে নেদারল্যান্ডস কোচের দায়িত্ব নেন কোমান। ইউরোর মূলপর্বে খেলার পাশাপাশি দলকে নেশনস কাপের ফাইনালেও তুলেছিলেন। বেশ ভালোই করেছিলেন কোমান, কিন্তু ২০২০ সালে ডাক পান বার্সেলোনা থেকে। কাতালান ক্লাবটির কোচ হওয়ার স্বপ্ন মনে পুষে রেখেছিলেন কোমান। সে বছর আগস্টেই জাতীয় দলের দায়িত্ব ছেড়ে বার্সেলোনার কোচ হন। কিন্তু বার্সায় টিকতে পেরেছেন দুই মৌসুমেরও কম সময়। খেলোয়াড়দের সঙ্গে সম্পর্ক ভালো ছিল না। লা লিগা ও চ্যাম্পিয়নস লিগেও দল ভালো করতে পারেনি। ছাঁটাই হন ২০২১ সালের অক্টোবরে।

দ্বিতীয় মেয়াদে জাতীয় দলের দায়িত্ব নেওয়ার পর কোমান জানিয়েছেন, তাঁর কিছু একটা প্রমাণ করার আছে, ‘বড় টুর্নামেন্টে আমি (খেলোয়াড় হিসেবে) সফল। তাই আমি যে সফল কোচও হতে পারি সেটা প্রমাণ করতে চাই। মার্চে শুরু হতে যাওয়া ইউরোর বাছাইপর্বে ভালো করা প্রথম লক্ষ্য।’ গালের রক্ষণাত্মক কৌশল নিয়েও কথা বলেছেন কোমান, ‘টানা ২০টি আন্তর্জাতিক ম্যাচে হার নেই—আমি কোচ হলেও এমন ফল অবিশ্বাস্য লাগত। তবে এটা অন্যভাবেও করা যেত এবং আমি সেটাই করতে চাই।’

কোমান ‘অন্যভাবে’ বলতে সম্ভবত গালের রক্ষণাত্মক কৌশল থেকে বের হয়ে আক্রমণাত্মক খেলার দিকে ইঙ্গিত করেছেন। ইউরোর বাছাইপর্বে আগামী ২৪ মার্চ প্রথম ম্যাচেই কঠিন প্রতিপক্ষের মুখোমুখি হবে নেদারল্যান্ডস। প্রতিপক্ষ ফ্রান্স। এই গ্রুপে অন্য তিনটি দল আয়ারল্যান্ড, গ্রিস ও জিব্রাল্টার।