আর্জেন্টিনার সংবাদমাধ্যম ‘মুন্দো আলবিসেলেস্তে’ এবং ‘টিওয়াইসি স্পোর্টস’ জানিয়েছে, লেফটব্যাক মার্কোস আকুনিয়া ও ফরোয়ার্ড নিকোলাস গঞ্জালেস শারীরিকভাবে পুরোপুরি ফিট নন। কাল প্রস্তুতি ম্যাচে ৪৫ মিনিট খেলেন আকুনিয়া। শারীরিকভাবে তাঁকে পুরো ফিট মনে হয়নি।

নিকোলাস গঞ্জালেসকে বেঞ্চে রাখলেও তাঁকে মাঠে নামাননি আর্জেন্টিনার কোচ লিওনেল স্কালোনি। এর বাইরেও চোট নিয়ে শঙ্কায় ভুগছে আর্জেন্টিনা শিবির। পাওলো দিবালা, ক্রিস্টিয়ান রোমেরো ও পাপু গোমেজদের চোট ও ফিটনেস সমস্যার কারণে কালকের প্রস্তুতি ম্যাচে আর্জেন্টিনা স্কোয়াডে দেখা যায়নি।

জয়ের পর তাই সংবাদ সম্মেলনে দুশ্চিন্তার কথাই জানালেন স্কালোনি, ‘আমরা ছোটখাটো সমস্যায় পড়েছি। এখনো কিছুদিন সময় আছে (স্কোয়াডে পরিবর্তনের জন্য)। আমরা পাল্টাতে পারব, যদিও আশা করছি, সেটা যেন না করতে হয়, তবে সম্ভাবনা আছে।’

স্কালোনি আরেকটু ব্যাখ্যা করে বলেন, ‘আমি বলছি না যে তারা (যাদের চোটের সমস্যা) স্কোয়াডের বাইরে থাকবে। আজ (কাল) কয়েকজনকে দলে নেওয়া হয়নি। কারণ, তারা খেলার মতো ফিট ছিল না এবং ঝুঁকি ছিল। তাই নিশ্চয়তা দিতে পারছি না যে তারা ঠিক আছে। এমনিতে ঠিক আছে কিন্তু সাবধান থাকতে হবে।’

ফিফার নিয়ম অনুযায়ী, কাতার বিশ্বকাপে চোট কিংবা মারাত্মক অসুস্থতাজনিত কারণে প্রথম ম্যাচের ২৪ ঘণ্টা আগে স্কোয়াডে পরিবর্তন আনতে পারবে দলগুলো। ‘সি’ গ্রুপে আর্জেন্টিনার তিন প্রতিদ্বন্দ্বী দল—সৌদি আরব, মেক্সিকো ও পোল্যান্ড। লুসাইলে ২২ নভেম্বর সৌদি আরবের মুখোমুখি হয়ে কাতার বিশ্বকাপের অভিযাত্রা শুরু করবে আর্জেন্টিনা।