এর মধ্যে বিশ্বকাপ নিয়ে কথা বলতে শুরু করেছেন তারকারাও। তাঁরা কথা বলছেন নিজেদের প্রস্তুতি, সম্ভাবনা ও পছন্দ নিয়ে। কদিন আগে মেসিও যেমন জানিয়েছিলেন নিজের ফেবারিট দলের নাম। যেখানে ব্রাজিল ও ফ্রান্সের নাম সবার আগে রেখেছিলেন আর্জেন্টাইন তারকা।

একইভাবে এবার নেইমারও বিশ্বকাপে নিজের ফেবারিট দলের নাম জানিয়েছেন। নেইমারের সেই তালিকায় আছে ফ্রান্স, আর্জেন্টিনা, জার্মানি, ইংল্যান্ড ও বেলজিয়াম।

নিজের দেশ ব্রাজিলকেও পিছিয়ে রাখছেন না নেইমার। ব্রাজিল এবার কাতারে যাচ্ছে নিজেদের ইতিহাসে ষষ্ঠ বিশ্বকাপ শিরোপার খোঁজে। এবার আর হারতে চান না নেইমাররা। কারণ, হেরে যাওয়াটা কত কষ্টের, তা জানা আছে নেইমারের।

ব্রাজিলের ২০ বছরের বিশ্বকাপ–খরা ঘোচাতে চাওয়া এই পিএসজি তারকা বলেছেন, ‘ফুটবলে হার মেনে নেওয়া কখনোই সহজ ব্যাপার নয়। তবে বিশ্বকাপে বিষয়টি আরও খারাপ। যে কারণে আপনাকে প্রস্তুতিটা ভালোভাবে নিতে হয়। শারীরিক ও মানসিকভাবে শতভাগ ফিট থাকতে হয়।’

বিশ্বকাপ সাধারণত জুন–জুলাইয়ে অনুষ্ঠিত হলেও কাতারের আবহাওয়ার কারণে সেটি এবার নভেম্বরে মাঠে গড়াবে। সময় পরিবর্তন নিয়ে অনেকে বিরক্ত হলেও নেইমার অবশ্য একে ইতিবাচকভাবেই দেখছেন।

তিনি আরও যোগ করে বলেছেন, ‘এবারের বিশ্বকাপ প্রস্তুতি অন্যবারের চেয়ে ভালো। কারণ এটি মৌসুমের মাঝামাঝি সময়ে হচ্ছে। যেখানে শারীরিকভাবে আপনি সেরা অবস্থায় থাকবেন। মৌসুমের শেষে টুর্নামেন্ট হলে খেলোয়াড়েরা ক্লান্ত থাকতে পারে। তাই আমি মনে করি, এবারের বিশ্বকাপের মানটা অনেক উঁচু থাকবে।’