বিষয়

ভ্রমণ

ভ্রমণ

নীল জলের লালাখালে

সারি নদী কারও কাছে লালাখাল, আবার কারও কাছে নীল নদ নামেই পরিচিত। পাহাড়ঘেরা স্বচ্ছ এই নদীর পানির রং নীল। নদীর গভীরতা যেখানে বেশি, পানির রং সেখানে গাঢ় নীল।

নীল জলের লালাখালে

সমুদ্রনামা

ভ্রমণের জন্য আমার আগ্রহের তালিকায় ওপরেই থাকে পাহাড় আর সমুদ্র। কারণ, তাদের বিশালতার কাছে নিজেকে অনেক ক্ষুদ্র মনে হয়। আর এই ‘ক্ষুদ্র’ মনে হওয়াটাই নিজের মনের কোণে জমে থাকা আত্মগরিমাকে এক ঝটকায় উড়িয়ে দেয়।

সমুদ্রনামা

রাধার গ্রামে হোলি

‘লাঠমার হোলি’ হয় মূল হোলি বা দোলের এক সপ্তাহ আগে। উত্তর প্রদেশে বৃন্দাবনের গ্রাম বরসানার (রাধার বাসভূমি) রাধারানী মন্দিরে। এখানে রঙের উৎসব চলে এক সপ্তাহ ধরে।

রাধার গ্রামে হোলি

সেন্ট মার্টিনে তিক্ত অভিজ্ঞতা

দুপুর ১২টা ৩০ মিনিট। জাহাজের এক প্রান্তে দাঁড়িয়ে তখন দূর থেকে চেয়ে আছি সামনের সবুজ আবহের দিকে। স্বচ্ছ নীলে জড়ানো সেন্ট মার্টিনকে বইয়ের পাতায় কিংবা পত্রিকার প্রচ্ছদে দেখে এসেছি কতকাল। এই প্রথম সেই ...

সেন্ট মার্টিনে তিক্ত অভিজ্ঞতা

নতুন সব অ্যাকটিভিটি দিয়ে এখন আরও পরিপূর্ণ কক্সবাজার

বিশ্বের যেকোনো জনপ্রিয় সমুদ্রসৈকতের মতো কক্সবাজারে এখন অনেক বিচ অ্যাকটিভিটি সহজলভ্য।

নতুন সব অ্যাকটিভিটি দিয়ে এখন আরও পরিপূর্ণ কক্সবাজার

রবার্ট ব্রুসের দেশে: শেষ পর্ব

স্থাপত্য, শিক্ষা আর ইতিহাসের জনপদে

স্কটিশ ধারাপাত সঙ্গে নিয়ে এডিনবরায় এলেও প্রকৃতি বাদ সাধেনি নগরভ্রমণে আনন্দ উপভোগে। তাই ইতিহাসের নগরীতে ঘুরে গলাগলি করে কাটিয়ে দেওয়া একমুঠো অনিন্দ্য সময়। বর্তমানে দাঁড়িয়ে সময়ের হাত ধরে ফিরে যাওয়া কয়েক ...

এডিনবরায় বিশ্ববিদ্যালয়

বাসার ভাই ২১৩

ঘোরানোর জায়গা দেখানোর কথা বলে কোথায় নিয়ে গেল লোকটা

ঘোরার জায়গা অবশ্যই আছে। চলেন, দেখায় নিয়া আসি। পাশেই আছে...

ঘোরানোর জায়গা দেখানোর কথা বলে কোথায় নিয়ে গেল লোকটা

টিপস

বেড়াতে যাওয়ার আগে

শুধু অনুকূল আবহাওয়া দেখেই হুট করে বেরিয়ে পড়লেই তো চলে না, বেড়ানোর আগে কিছু প্রস্তুতিও থাকা চাই। বিশেষ করে, বেড়ানোর সঙ্গী ব্যাগটি গোছানোর ক্ষেত্রে বাড়তি মনোযোগ রাখা দরকার।

বেড়াতে যাওয়ার আগে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র গুছিয়ে নিন। মডেল: রাজ ও অর্পিতা

ভ্রমণে নতুন গন্তব্য

মনপুরা দখিনা হাওয়া সৈকত

ভ্রমণে নতুন গন্তব্য মনপুরা দখিনা হাওয়া সৈকত।

মনপুরা দখিনা হাওয়া সৈকত

পর্ব–২

নবাবের চেয়ে বেগম বড়

রাজনীতি নাকি ভালোবাসা, কোনটি সে সম্পর্কে প্রধান ছিল সেটা বোঝা বোঝা কঠিন। বহু বেগম সাহিবা নিজের সর্বস্ব দিয়ে দিয়েছিলেন নবাবকে। তাই রাজ্যের চালিকাশক্তি একপর্যায়ে তাঁর হাতেই চলে যায়।

নবাবের চেয়ে বেগম বড়
আরও