বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আসিয়ান সদস্যভুক্ত দেশগুলোর পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা এ নিয়ে শুক্রবার ভার্চ্যুয়াল বৈঠক করবেন। এতে সভাপতিত্ব করবে আসিয়ানের চেয়ারম্যান পদে থাকা ব্রুনেই।

এদিকে রয়টার্সের আরেক প্রতিবেদনে বলা হয়, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বিশেষ দূতের মিয়ানমার সফর আটকায়নি সামরিক জান্তা। তবে জান্তার এক মুখপাত্র বলেছেন, বিভিন্ন অপরাধে অভিযুক্ত অং সান সু চির সঙ্গে দেখা করতে পারবেন না বিশেষ দূত।

জান্তা মুখপাত্র জাও মিন তুন অভিযোগ করেন, সামরিক বাহিনীর অনুমোদনে জাতিসংঘ দূত মনোনয়নে বিলম্ব রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। আন্তর্জাতিক বিষয়ে জড়িত হওয়ার ক্ষেত্রে জাতিসংঘ এবং অন্যান্য দেশ ও সংস্থার দ্বৈত মান পরিহার করা উচিত।

মিয়ানমারের ওপর আন্তর্জাতিক চাপ বাড়তে থাকার মুখে সামরিক মুখপাত্রের এই বিবৃতি সামনে এল। এর আগে গত এপ্রিলে ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী জাকার্তায় আসিয়ান নেতাদের বৈঠক শেষে জোটের পক্ষ থেকে পাঁচ দফা প্রস্তাব দেওয়া হয়।

মিয়ানমারে রক্তপাত বন্ধ করতে আয়োজিত এ বৈঠকে দেশটির সেনাপ্রধান মিন অং হ্লাইং উপস্থিত ছিলেন। বিক্ষোভ দমনের নামে মিয়ানমারে রক্তপাত বন্ধ করা, আলোচনার পথ খোলা রাখা, গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠা ও রাজবন্দীদের মুক্তি—জান্তা প্রধানের কাছে এগুলোই ছিল আসিয়ান নেতাদের চাওয়া।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন