দক্ষিণাঞ্চলীয় খেরসন শহর পুনর্দখলে নিজেদের ইচ্ছার কথা প্রকাশ্যে জানিয়েছে ইউক্রেন। হামলার শুরুর দিকেই রুশ বাহিনীর হাতে শহরটির পতন হয়েছিল।

এর আগে ইউক্রেনের জাতীয় নিরাপত্তা ও প্রতিরক্ষা পরিষদের সচিব ওলেকসি দানিলভ এর আগে এক টুইটারে বলেন, খেরসন অঞ্চলে ‘সর্বোচ্চসংখ্যক সেনা’ জড়ো করছে রাশিয়া। তবে এ নিয়ে তিনি বিস্তারিত কিছু বলেননি।

গত ২৪ ঘণ্টায় দক্ষিণে ৬৬ শত্রু সেনাকে হত্যা, ৩টি ট্যাংক ও অস্ত্রের ২টি মজুত ধ্বংসের দাবি করেছে ইউক্রেনীয় বাহিনী। তারা আরও জানায়, মাইকোলাইভে মাল্টিপল রকেট লঞ্চার দিয়ে হামলা চালিয়েছে রুশ বাহিনী।

ইউক্রেনীয় বাহিনীও খেরসনের দিনিপ্রো নদীর ওপর নির্মিত সেতুর ওপর হামলা চালিয়ে যান চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে। তবে রুশ কর্মকর্তারা বলেছেন, সেতুর পরিবর্তে সেনাদের নদী পারাপারে তাঁরা পন্টুন ব্রিজ ও ফেরি ব্যবহার করবেন।

ইউরোপ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন