default-image

পশ্চিমবঙ্গে ক্ষমতাসীন তৃণমূল কংগ্রেসের দিন শেষ হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। আজ রোববার দুপুরে হাওড়া জেলায় এক অনুষ্ঠানে বিজেপির নেতা অমিত শাহ এ কথা বলেন। ওই অনুষ্ঠানে দিল্লি থেকে ভার্চ্যুয়ালি যুক্ত হন তিনি।

পশ্চিমবঙ্গের হাওড়া জেলার ডুমুরজলায় বিজেপিতে বিভিন্নজনের যোগদান উপলক্ষে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানের নাম দেওয়া হয় ‘যোগদান মেলা’। গতকাল শনিবার দিল্লিতে গিয়ে বিজেপিতে যোগ দেন পশ্চিমবঙ্গের পাঁচ তৃণমূল নেতা ও কলকাতার অভিনেতা রুদ্রনীল ঘোষ। আজ অনুষ্ঠানে তাঁরা উপস্থিত ছিলেন। এই অনুষ্ঠানে হাওড়ার অনেক তৃণমূল নেতা ও জনপ্রতিনিধি বিজেপিতে যোগ দেন। যোগদান অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি।

বিজ্ঞাপন

অমিত শাহ বলেন, এই বাংলায় যেভাবে মানুষ বিজেপির দিকে ঝুঁকছেন, তাতে নির্বাচনের সময় যতই এগিয়ে আসছে, ততই একা হয়ে যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আজ তৃণমূল, সিপিএম, কংগ্রেসের বহু নেতা বিজেপিতে আসছেন।

তিনি বলেন, ভারতের বহু মনীষীর স্মৃতিধন্য এই বাংলা। বাংলায় তৃণমূলের অপশাসন হটিয়ে গণতন্ত্র বাঁচাতে হবে। শান্তি ফিরিয়ে আনতে হবে। এই বাংলা থেকে উধাও হয়ে গেছে মমতার মা-মাটি-মানুষ স্লোগান। সেখানে এখন এসেছে দুর্নীতির স্লোগান। তাই তো এখন এই বাংলার মানুষ বিজেপিকে চাইছে।

বিজেপিতে যোগ দেওয়া পশ্চিমবঙ্গের সাবেক বনমন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘একুশের নির্বাচনে বাংলাজুড়ে পদ্ম ফুটবে। তাদের শেষের দিন শুরু হয়েছে। এখন এই বাংলায় চাই ডাবল ইঞ্জিন সরকার। রাজ্যকে দিশা দেখাতে পারে এই ডাবল ইঞ্জিন সরকার। তাই কেন্দ্রে ও রাজ্যে এক সরকার চাই। চলুন, এবার তৃণমূল সরকারকে পাল্টাই।’

default-image

সদ্য তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যোগ দেওয়া আরেক সাবেক মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী বলেন, তৃণমূল এখন হয়ে গেছে একটি প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি। তাই কেন্দ্র ও রাজ্যে একই সরকার আনতে হবে। মানুষও ইতিমধ্যে মনস্থির করে ফেলেছে বাংলায় এবার পরিবর্তন হবেই। ক্ষমতায় আসবে বিজেপি।

বিজ্ঞাপন
ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন