সংসদের বর্ষাকালীন অধিবেশনের শুরু থেকেই মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে আলোচনার দাবিতে সরব বিরোধী এমপিরা। রান্নার গ্যাসের দাম বাড়ানো, প্যাকেটজাত খাদ্যসামগ্রীর ওপর অভিন্ন পণ্য ও পরিষেবা কর চাপানোসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনার জন্য বিরোধীরা একের পর এক মুলতবি প্রস্তাব জমা দিয়েছেন। কিন্তু কোনোটিই গ্রাহ্য হয়নি। এ কারণে বিক্ষোভে উত্তাল সংসদের দুই কক্ষ। গত সোমবার নতুন রাষ্ট্রপতির শপথ গ্রহণের দিন লোকসভা থেকে চলতি অধিবেশনের জন্য সাময়িক বরখাস্ত করা হয় চার কংগ্রেস সদস্যকে। পরের দিন মঙ্গলবার রাজ্যসভা থেকে চলতি সপ্তাহের জন্য সাময়িক বরখাস্ত করা হয় ১৯ জনকে। আজ বুধবার বরখাস্ত হন একজন। এরপরই গান্ধীজির মূর্তির সামনে ৫০ ঘণ্টা অবস্থান বিক্ষোভের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

বিরোধী দলের অব্যাহত বিক্ষোভের বিষয়ে বুধবার সংসদীয়বিষয়ক মন্ত্রী প্রহ্লাদ যোশি বলেছেন, সদস্যরা ক্ষমা চাইলে এবং প্ল্যাকার্ড নিয়ে সভাকক্ষে না আসার প্রতিশ্রুতি দিলে বরখাস্তের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করা হবে।

অপর দিকে রাজ্যসভার চেয়ারম্যান ভেঙ্কাইয়া নাইডু বলেছেন, মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে আগামী সপ্তাহে আলোচনা হবে।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন