কংগ্রেসের সংখ্যালঘুবিষয়ক নেতা কেভিন ম্যাককার্থি সতর্ক করে বলেছেন, মধ্যবর্তী নির্বাচনের পর এ ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করা হতে পারে। আর এ জন্য অ্যাটর্নি জেনারেল মেরিক গারল্যান্ডকে প্রচ্ছন্ন হুমকি দিয়েছেন ম্যাককার্থি। মেরিক গারল্যান্ডকে কাগজপত্র গুছিয়ে দিন গুনতে বলেছেন তিনি। কেভিন ম্যাককার্থি আরও বলেছেন, ডিপার্টমেন্ট অব জাস্টিসকে রাজনীতির অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করা অসহনীয় মাত্রায় পৌঁছেছে।

মঙ্গলবার একটি কনফারেন্স চলাকালে রিপাবলিকানরা এফবিআইয়ের অনুসন্ধান নিয়ে সংক্ষিপ্ত আলোচনা করেছে বলে জানা গেছে। সেখানে শীর্ষ রিপাবলিকানরা স্পষ্ট করেছেন, তারা ডিপার্টমেন্ট অব জাস্টিসের কাছে তল্লাশির জবাব চাইবেন। আগামী শুক্রবার মুদ্রাস্ফীতি হ্রাস আইন নিয়ে কংগ্রেসে পূর্ব নির্ধারিত আলোচনা হওয়ার কথা।

যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স এ ঘটনার দায় মেরিক গারল্যান্ডের ওপর চাপিয়েছেন। এক টুইটবার্তায় পেন্স বলেছেন, আমি ডোনাল্ড ট্রাম্পের ব্যক্তিগত বাসভবনে নজিরবিহীন তল্লাশি নিয়ে লাখো আমেরিকানদের গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছি।

মাইক পেন্স বলেছেন, গতকালের পদক্ষেপটি আমাদের বিচার ব্যবস্থার প্রতি জনগণের আস্থা ক্ষুন্ন করবে। অ্যাটর্নি জেনারেল গারল্যান্ডকে অবশ্যই আমেরিকান জনগণের কাছে এর জবাব দিতে হবে, কেন এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। সেটা অবিলম্বে করতে হবে।

এদিকে অ্যাটর্নি জেনারেলকে দায়ী করার পাশাপাশি ডেমোক্র্যাটদের ওপরও চটেছেন অনেক রিপাবলিকান। জাতীয় কমিটির সভানেত্রী রোনা ম্যাকড্যানিয়েল এ ঘটনার তদন্তের দায়িত্ব জো বাইডেনকে নিতে বলেছেন।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন