default-image

পাকিস্তানের গল টেস্ট জয়ের পর রমিজ বাবর–শফিকদের প্রশংসা করেছেন টুইট করে। তাঁর প্রশংসা ছিল এ রকম, ‘বিশ্বকে ভুল প্রমাণ করতে এই পাকিস্তান দলকে পরিসংখ্যানের এভারেস্ট পেরোতে হতো এবং সেটা তারা করেছে! অভিনন্দন বাবর আজম।’

পাকিস্তানের জয়ের লক্ষ্য ছিল ৩৪২ রান। এই ম্যাচের আগে গলে সর্বোচ্চ রান তাড়া করে জয়ের রেকর্ডটি ছিল শ্রীলঙ্কার। ২০১৯ সালের আগস্টে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ২৬৮ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে জিতেছিল তারা ৬ উইকেটে।

default-image

গলের স্পিনবান্ধব উইকেটে টেস্টে চতুর্থ ইনিংসে কখনো ৩০০ রানের বেশি করতে পারেনি কোনো দল। এই ভেন্যুতে চতুর্থ ইনিংসে সর্বোচ্চ দলীয় ইনিংসটা ঠিক ৩০০। ২০১২ সালে ইনিংসটা পাকিস্তান দলেরই ছিল। যদিও ৫১০ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিং করে পাকিস্তান হেরেছিল ২০৯ রানে।

এ দুটি রেকর্ড পাকিস্তান ভাঙতে পেরেছে মূলত আবদুল্লাহ শফিকের অনবদ্য ব্যাটিংয়ে। ইনিংস উদ্বোধন করতে নেমে ৪০৮ বলে ৭টি চার ও এক ছয়ে ১৬০ রান করে অপরাজিত ছিলেন শফিক। ক্রিকেট বিশ্ব আলাদা করে প্রশংসায় ভাসাচ্ছে তাঁকে। রমিজও এর বাইরে নন। শফিকের ইনিংসটিতে মুগ্ধ রমিজ বলেছেন, ‘পাকিস্তান হয়তো আবদুল্লাহ শফিকের মধ্যে পরবর্তী ব্যাটিং মহাতারকা পেয়ে গেছে। খুব শান্ত, ধীরস্থির, গোছানো এবং মানসম্পন্ন।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন