কবিতা

বৈশাখের কবিতা

অগ্নিস্নানে শুচি হোক ধরা

ক্ষণিকের ভার, অকস্মাৎ সমূহ বিপুল, বয়ে নেওয়া মুখ থুবড়ে, হিমাচল খাদে অতলের তলে, ডুবে যেতে যেতে

অগ্নিস্নানে শুচি হোক ধরা

কবিতা

কালবৈশাখী ছুঁয়েছে আমায়

কালবৈশাখী ছুঁয়েছে আমায় এক শ জনম পর তছনছ করা মাতাল হাওয়া আবদ্ধ করেছে আমায়, তোমার শান্ত দুনয়নের ভেতর। বজ্রপাতের ঝলকানো আলো শহর কাঁপানো বজ্রধ্বনি তার কি খেয়াল আর আছে বলো! আমি তো তখন ব্যস্ত ...

কালবৈশাখী ছুঁয়েছে আমায়

কবিতা

মৃত্যু

গ্রীষ্মের দুপুরে যদি আমার মৃত্যু হয় ছুড়ে দিয়ো দাবানলের মাঝে। অনলের সাথে আমি মিশে যেতে চাই। বর্ষার বিকেলে যদি আমার মৃত্যু হয় ভাসিয়ে দিও ভরা গাঙের জলে। জলের সাথে আমি মিশে যেতে চাই। শরতের দিনে যদি ...

মৃত্যু

কবিতা

বৈশাখ এলো

বৈশাখ এল, দুয়ার খোলো বরণ করো তারে নতুন ভাবে, নতুন সাজে গড়ো জীবনটারে। পুরোনো গ্লানি, চোখের পানি ধুয়ে মুছে হোক সাফ ভুলে যাও সব, ডাকো যে রব হাত তুলে চাও মাফ। হাত ধরে হাত, গাও দিবা রাত নতুন ...

বৈশাখ এলো

কবিতা

বৈশাখ এলে

বৈশাখ এলে সুন্দর দিলে বাজে বাংলা গান বৈশাখ এলে মনে জাগে বাংলার প্রতি টান। বৈশাখ এলে সবটা ভুলে সাজি বাঙালি সাজ বৈশাখ এলে পান্তা খেলে কাটে গরমের ঝাঁজ।

বৈশাখ এলে

কবিতা

অনুভূ‌তির চি‌ঠি

নির্ঘুম চোখ অব‌লোকন কর‌বে না মায়াময় ভো‌রের সৌন্দর্য, স্বপ্নরা উঁ‌কি দে‌বে না চো‌খের পাতায় কান্না অবিশ্রান্ত ধারায় বর্ষিত হ‌বে না যখন তখন। কর্ণকুহ‌রে প্রবেশ কর‌বে না কো‌কি‌লের ডাক, ...

অনুভূ‌তির চি‌ঠি

কবিতা

সামনে রসের মাস

আম ধরেছে ছোট্ট গাছে হাসছে মধুকর কাঠবিড়ালি রাখছে নজর পাকবে কদিন পর। বুলবুলি যায় লিচুগাছে অপেক্ষা আর কত! কাঁঠাল খাবে তোতা পাখি হয় না সময় গত।

সামনে রসের মাস

কবিতা

কষ্টের মতো মুছে ফেলি

ঝাপসা, কুয়াশা, শিশিরস্নাত প্রভাতে বেরোলাম ঘর থন লেপে মুড়ে বেঘোরে ঘুমোয় তনয়দ্বয়, বউয়ের তেলায়াতে অনুরণন। বাইরে শুনি, খটাখট ধ্বনি, তিরিক্ষি মেজাজে, হালকা দুলনি দৌড় ঝাপটা লাগে, চোখ-মুখ ভাগে ...

কষ্টের মতো মুছে ফেলি

ছড়া

মনটা উড়ুউড়ু

বোশেখ নিয়ে এলো ডানায় ঝড়, আমের থোকা দোল খেয়ে সব পড়...

মনটা উড়ুউড়ু

ছড়া

হাতি আর নাতি

বনটা ছেড়ে গাঁয়ে এল থপাস থপাস হাতি, সফরে তার সঙ্গী হলো প্রিয় ছোট্ট নাতি...

হাতি আর নাতি
আরও