ট্যাগ

কবিতা

শামসুর রাহমানের অগ্রন্থিত কবিতা

নির্জন মুহূর্তের কবিতা

শামসুর রাহমানের এই কবিতাটি প্রথম ছাপা হয়েছিল মাহে নও পত্রিকায়, ১৯৫১ সালে। কবি তখন ২২ বছরের তরুণ। তাঁর প্রথম জীবনের লেখালেখির চিহ্ন আছে এই কবিতায়। কবিতাটি পাওয়া গেছে অধ্যাপক ভূঁইয়া ইকবালের সৌজন্যে।

নির্জন মুহূর্তের কবিতা

আজ শামসুর রাহমানের ৯২তম জন্মদিন

কবি আর তাঁর স্মৃতির শহর

‘এ শহর ক্ষুধাকেই নিঃসঙ্গ বাস্তব জেনে ধুলায় গড়ায়;/ এ শহর পল্টনের মাঠে ছোটে, পোস্টারের উল্কি-ছাওয়া মনে/ এল গ্রেকো ছবি হয়ে ছোঁয় যেন উদার নীলিমা,/ এ শহর প্রত্যহ লড়াই করে বহুরূপী নেকড়ের সাথে।’

কবি আর তাঁর স্মৃতির শহর

আজ শামসুর রাহমানের ৯২তম জন্মদিন

কবি আর তাঁর স্মৃতির শহর

১৯৭০ সালে ঘাতকের মুখোমুখি দাঁড়িয়ে যে মুক্তিকামী শহরের বিপন্ন ও লড়াকু ছবি আঁকেন শামসুর রাহমান, তাঁর ‘এ শহর’ কবিতায়, ১৯৭৯ সালে স্বাধীন স্বদেশের সেই প্রিয় ঢাকা শহরকে নিয়ে তিনি লিখলেন এক অনুপম আত্মকথন ...

কবি আর তাঁর স্মৃতির শহর

কবিতার এক পাতা

‘কবিতার এক পাতা’ দুই বছর পূরণ করেছে। অভিবাদন কবিদের। পূর্ব-পশ্চিমে ছড়িয়ে থাকা কবিদের দাপুটে বিচরণ ছিল এ সময়টিতে। কবিরা সময়কে ধারণ করেছেন তাঁদের ভাববিলাস দিয়ে। বোধের জগতে তাঁরা নাড়া দিয়েছেন। বাংলা ...

কবিতার এক পাতা

সাহিত্যে নোবেল ২০২০

লুইজ গ্লিক ও তাঁর কবিতা

এ বছর সাহিত্যে নোবেল পেয়েছেন মার্কিন কবি লুইজ গ্লিক। নোবেল জয়ের অনেক আগে তাঁর কবিতা বাংলা ভাষায় অনুবাদ করেছিলেন শামস আল মমীন এবং তা ছাপা হয়েছিল প্রথম আলোয়, ২০০৫ সালে। সেই কাহিনির সূত্রে এই কবির ...

লুইজ গ্লিক ও তাঁর কবিতা

লুইজ গ্লিকের কবিতা

প্যাট্রোক্ল্যাসের গল্পে কেউই বাঁচে না, এমনকি অ্যাকিলিসও নয়, যে প্রায় দেবতা একজন। প্যাট্রোক্ল্যাস তারই মতো; তারা পরতেন একই রকম বর্ম।এ রকম বন্ধুত্বে সব সময় একজন সেবা করে অন্যজনের,একজন আরেকজনের চেয়ে ...

লুইজ গ্লিকের কবিতা

কবিতা

ছিন্ন করো স্থিরতা: সোলায়মান কবীর

পাখির দানাপানির চেয়েও বেশি পড়ছে পেটে তোমার, আবার কোমল পানীয় অথচ ও বাড়ির মেয়েটি ভূলুণ্ঠিত হলো আচমকা কিছু ঠাওর করার আগেই। সুন্দরবনে থাকে বাঘ, এ তো মামুলি কথা হেলেদুলে তুমি চললে বীরদর্পে অদৃশ্য ...

ছিন্ন করো স্থিরতা: সোলায়মান কবীর

শামীম আজাদের কবিতা

শামীম আজাদের কবিতাগুলো লৌকিকতার সৌরভে ভরা, যেখানে আকুল হৃদয়ে কবি বলেন, ‘কইলজাত আছলায় বন্দু আমার, অনকু কাপড়র মাজে, শাড়ি ছাড়া শামীম আজাদ, তোমারে পায় না যে!’ পড়ুন হৃদয় মথিত করা তিনটি কবিতা।

শামীম আজাদের কবিতা

সাতটি স্বর্গ পুড়ে ছাই

সহস্র বকুলঝরা ভোর! অনুকম্পার মতো যে বৃষ্টি নেমে এল হঠাৎ বিদীর্ণ তার ঘোর এবং সে আর্তনাদে সাতটি স্বর্গ পুড়ে ছাই! হায়েনা-উৎসব দেশে নারী তবু কাকে ডাকে ‘ভাই’।

সাতটি স্বর্গ পুড়ে ছাই

পেরেক

ভাষাও যেখানে বোবা হয়ে যায় শব্দের হাড়গোড় খুলে পড়ে অক্ষম বেদনায়, বিবস্ত্র বাক্যরা থেঁতলে যায় ভিডিও ক্যামেরার ঘোলা লেন্সের নিচে, তখন কোন ধ্বনিতে আমি ক্ষোভ আর ঘৃণা প্রকাশ করব?

পেরেক
আরও