শুটিং স্পট

লকডাউনে ভালো নেই চলচ্চিত্রের শ্রমজীবী মানুষেরা

বিনিময়ে তারা নানা দিক থেকে আমাদের ছবি তুলে ফেসবুকে পোস্ট করল। এবারও কষ্টে দিন যাচ্ছে। যত দিন পারি এভাবে চলব, তবু ফটোসেশনে যাওয়ার ইচ্ছা নেই

লকডাউনে ভালো নেই চলচ্চিত্রের শ্রমজীবী মানুষেরা

চোখের পাতা না ফেলে শুটিং শেষ করলেন জয়া

এই চরিত্রটার জন্য চোখের মণির রঙের একটা ভূমিকা ছিল। আমাকে তাই লেন্স পরতে হয়েছিল। আমি আবার ভারী মেকআপ নিয়ে লেন্স, আইল্যাশ বা এ রকম নকল কিছু লাগিয়ে ঠিকঠাক অভিনয় করতে পারি না।

চোখের পাতা না ফেলে শুটিং শেষ করলেন জয়া

জ্বর, ঠান্ডা, হাঁচি–কাশি নিয়ে শুটিং করছেন কেউ কেউ

কেউ বলছেন, এসব কিছু নয়, ঋতু পরিবর্তনজনিত ঠান্ডার সমস্যা। কেউ বলছেন, আইসক্রিম, ঠান্ডা পানি খাওয়া ও শুটিং থেকে ফিরে রাতে গোসলের কারণে অসুস্থ

জ্বর, ঠান্ডা, হাঁচি–কাশি নিয়ে শুটিং করছেন কেউ কেউ

সেবার পুরো শুটিংয়ে হুমায়ূন আহমেদ তাঁর সঙ্গে কথাই বলেননি

সেবার পুরো শুটিংয়ের সময় হুমায়ূন আহমেদ এই অভিনেতার রসিকতায় হাসেননি এবং তাঁকে হাসতে দেননি। এমনকি তাঁর প্রিয় সালেহ ভাইয়ের সঙ্গে কথাও বলেননি।

সেবার পুরো শুটিংয়ের সময় হুমায়ূন আহমেদ এই অভিনেতার রসিকতায় হাসেননি

‘প্রাপ্তবয়স্ক’দের কনটেন্ট মনে হয়েছে বলে কাজ করেননি অ্যালেন

আমি এই ধরনের কোনো শিল্পীর সঙ্গে কখনো কাজ করিনি। মেয়েগুলো একটু অন্য রকম কাজ করে ইউটিউবে

‘প্রাপ্তবয়স্ক’দের কনটেন্ট মনে হয়েছে বলে কাজ করেননি অ্যালেন

সবাইকে জানিয়েই বিয়ে করবেন ফারিয়া

কয়েক দিনের মধ্যে পাকাপাকিভাবে বিয়ের আসরে বসতে চেয়েছিলেন। প্রস্তুতিও চূড়ান্ত করেছিলেন। তবে

সবাইকে জানিয়েই বিয়ে করবেন ফারিয়া

লকডাউনে শুটিং করতে বাধা নেই

ছোট পর্দার চারটি সংগঠনের বেঁধে দেওয়া কঠোর নীতিমালা অবশ্যই মানতে হবে

লকডাউনে শুটিং করতে বাধা নেই

গাড়িওয়ালির সঙ্গে চাবিওয়ালার প্রেমের গল্প

একদিন ঘুম থেকে উঠে দেখলেন আপনি সত্যিকারের টাঙ্গাওয়ালি হয়ে গেছেন, তখন কী করবেন? হাসতে হাসতেই মেহজাবীন বলেন

গাড়িওয়ালির সঙ্গে চাবিওয়ালার প্রেমের গল্প

সিনেমায় ২৫ মার্চের ভয়াল মুহূর্তগুলো

জীবন বাঁচাতে মানুষ ছুটতে থাকে দিগবিদিক। শহরের আনাচকানাচে পড়ে থাকে মানুষের গুলিবিদ্ধ লাশ। নারকীয় সেই হত্যাকাণ্ড বিভিন্ন সময়ে উঠে এসেছে বাংলাদেশের একাধিক চলচ্চিত্রে

‘গেরিলা’, ‘জয়যাত্রা’ ও ‘আমার বন্ধু রাশেদ’ সিনেমায় ২৫ মার্চ

কেন সাত বছর লেগেছে ‘নিষিদ্ধ প্রেম’–এর নির্মাণে

আমার ছবিটি প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য। কিছু ১৮‍+ দৃশ্য ছিল। ক্রিপ্ট দেখে শিমলা আপা পছন্দ করেছিলেন। গল্পের প্রয়োজনে সব দৃশ্য করতে রাজি হন। শুটিংয়ে তাঁর

কেন সাত বছর লেগেছে ‘নিষিদ্ধ প্রেম’–এর নির্মাণে
আরও