সাকিব আল হাসান

 সাকিব আল হাসান - প্রথম আলো জন্ম তারিখ : ২৪ মার্চ, ১৯৮৭ (বয়স ৩১ বছর)
জন্মস্থান : মাগুরা জেলা, বাংলাদেশ
উচ্চতা : ১.৭৫ মি.
স্ত্রী : উম্মে আহমেদ শিশির
সন্তান : আলায়না হাসান অব্রি
অভিষেক : ২০০৬ সালের ৬ আগস্ট
ব্যাটিংয়ের ধরন : বাঁ হাতি মিডল অর্ডার
বর্তমান টিম :

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল

(#৭৫/অল-রাউন্ডার)

শিক্ষা :

বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান,

আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি

 
 
সাকিব আল হাসান ১৯৮৭ সালের ২৪ মার্চ মাগুরা জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। প্রথম বাংলাদেশি ক্রিকেটার হিসেবে আইসিসির ওয়ানডে অলরাউন্ডার র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে উঠে আসেন সাকিব। বর্তমানে তিনি বাংলাদেশ টেস্ট দলের অধিনায়কের দায়িত্বে আছেন। সাকিবকে সর্বকালের সেরা বাংলাদেশি ক্রিকেটার ভাবা হয়। তাঁর রেকর্ড, অর্জনের কারণে এর সঙ্গে দ্বিমত পোষণ করবেন খুব কম মানুষই। দুর্দান্ত ব্যাটিং, বুদ্ধিদীপ্ত বোলিং, সঙ্গে অসাধারণ ফিল্ডিং সব মিলিয়ে আক্ষরিক অর্থেই সাকিব অলরাউন্ডার। শুধু বাংলাদেশ নয়, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটেও এ সময়ের সেরা অলরাউন্ডারদের একজন সাকিব। 

সাকিব আল হাসান - প্রথম আলোক্রিকেট ইতিহাসেই টেস্ট, ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি তিন ধরনের ক্রিকেটে একই সময়ে এক নম্বরে থাকা একমাত্র ক্রিকেটার তিনি। ২০১৫ সালে সাকিব এই কৃতিত্ব প্রথম করে দেখান। সাকিব নিজে নিজের এই কৃতিত্ব আবার করে দেখিয়েছেন, যা আর কোনো দেশের ক্রিকেটার পারেননি। আরেকটি অলরাউন্ড কৃতিত্বে সাকিব অনন্য হয়ে আছেন। ২০১৭ সালের অক্টোবরে ওয়ানডেতে ৫ হাজার রান ও ২০০ মাইলফলক স্পর্শ করেন। মাত্র ১৭৮টি ওয়ানডে লেগেছে তাঁর। এত দ্রুত এই কৃতিত্ব আর কেউ করতে পারেনি। সাকিব টেস্ট ইতিহাসে তিন অলরাউন্ডারের একজন, একই ম্যাচে সেঞ্চুরি আর ১০ উইকেট নেওয়ার কৃতিত্ব আছে যাঁদের।

বাংলাদেশের পক্ষে টেস্টে সবচেয়ে বেশি উইকেট সাকিবের। ওয়ানডেতেও সবচেয়ে বেশি উইকেটের লড়াইটা চলছে মাশরাফি বিন মুর্তজার সঙ্গে। ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ওয়ানডেতে সাকিবের উইকেট ২৩৫টি, মাশরাফির ২৩৭টি। টেস্টে সাকিবের উইকেট ১৮৮টি। টেস্টে বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানদের পক্ষে সর্বোচ্চ ইনিংসটিও তাঁর। টেস্টে ৯ প্রতিপক্ষের সবার বিপক্ষে ইনিংসে ৫ উইকেট নেওয়া ইতিহাসের মাত্র চতুর্থ বোলার সাকিব।

সাকিব আল হাসানের অভিষেক ২০০৬ সালের ৬ আগস্ট, জিম্বাবুয়ের সফরের ওয়ানডেতে। ২০০৭ সালে মে মাসে চট্টগ্রামে ভারতের বিপক্ষে টেস্ট অভিষেক হয়। দ্রুতই তিনি বাংলাদেশের ক্রিকেটের প্রাণ হয়ে ওঠেন। অবশ্য বাংলাদেশের ক্রিকেটের বড় তারকার পদধ্বনি শোনা যাচ্ছিল তাঁর উঠতি বয়স থেকে। খেলা পাগল সাকিবকে বিকেএসপিতে (বাংলাদেশে ক্রীড়া শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান) ভর্তি করিয়ে দেন তাঁর বাবা মাশরুর রেজা। মাশরুর নিজে মাগুরার ফুটবলার ছিলেন। সাকিবের ফুপাতো ভাই মেহেদী হাসান উজ্জ্বল বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলেও খেলেছেন। 
 
ক্রীড়া-পাগল এক পরিবার থেকে উঠে এলেও সাকিবের খেলোয়াড় হতে চাওয়া সহজ ছিল না। নতুন সহস্রাব্দের শুরুতেও খেলাধুলাকে ক্যারিয়ার হিসেবে নিতে পারার কথা মধ্যবিত্ত পরিবারের অনেকে ভাবতে পারতেন না। সেখান থেকে একে একে সাফল্যের সিঁড়ি ভেঙে সাকিব বাংলাদেশের সবচেয়ে দামি তারকার একজন হয়ে উঠেছেন। আইপিএলের মতো টি-টোয়েন্টি লিগের সেরা তারকাদের একজন হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠা করেছেন। ২০১১ সালে ৪ লাখ ২৫ হাজার ডলারে সাকিবকে কিনে নিয়েছিল কলকাতা নাইট রাইডার্স। 

সাকিব আল হাসান - প্রথম আলো২০১৮ আইপিএলের নিলামে সাকিবকে ২ কোটি রুপিতে কিনে নেয় সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। আইপিএল ছাড়াও সাকিব অস্ট্রেলিয়ার বিগ ব্যাশ, পাকিস্তানের পিএসএল, ওয়েস্ট ইন্ডিজের সিপিএল, শ্রীলঙ্কার এসএলপিএল লিগগুলোতে খেলেছেন। এর মধ্যে সিপিএলে তাঁর ৬ রানে ৬ উইকেট টি-টোয়েন্টির সেরা বোলিংগুলোর একটি হয়ে আছে। সাকিব ইংল্যান্ডের কাউন্টি ক্রিকেটেও খেলেছেন। এভাবেই বাংলাদেশের এ সময়ের সেরা আইকনদের একজন সাকিব বিশ্ব ক্রিকেটেও বাংলাদেশের প্রতিনিধি হয়ে ওঠেন।

২০০৯ সালে সাকিব প্রথম ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক হিসেবে বাংলাদেশ দলকে নেতৃত্ব দেন। সাকিবের নেতৃত্বে সেবার বাংলাদেশ ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে গিয়ে টেস্ট ও ওয়ানডে সিরিজ জিতে আসে। ২০১১ সালে বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপেও সাকিব নেতৃত্ব দেন। পরে নানা বিতর্কের মুখে সাকিব নেতৃত্ব হারান। সাকিব তাঁর ক্যারিয়ারে বিতর্কেও জড়িয়েছেন নানা সময়ে। বিভিন্ন মেয়াদে নিষিদ্ধও হয়েছেন। 

সপরিবারে সাকিব - প্রথম আলো২০১২ সালের ১২ ডিসেম্বর সাকিব উম্মে আহমেদ শিশিরকে বিয়ে করেন। ২০১১ সালে ইংল্যান্ডের উস্টারশায়ারের হয়ে কাউন্টি ক্রিকেট খেলতে গিয়ে সাকিবের সঙ্গে শিশিরের পরিচয় হয়। ২০১৫ সালে সাকিব ও শিশিরের মেয়ে আলায়না হাসান অব্রি জন্ম নেয়। শিক্ষাগত জীবনে সাকিব এআইইউবি (আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ) থেকে বিবিএ পাস করেছেন। সাকিব ফুটবলেরও ভীষণ পাগল। বার্সেলোনা ও লিওনেল মেসির সমর্থক। সাকিব ক্রীড়াক্ষেত্রে বাংলাদেশের অন্যতম সেরা স্বীকৃতি প্রথম আলো ক্রীড়া পুরস্কারে চারবার বর্ষসেরা ক্রীড়াবিদ নির্বাচিত হয়েছেন। 
 
 

সংবাদ সম্মেলনে সাকিব

স্বপ্ন কি প্রতিদিন পরিবর্তন হয় নাকি

বাংলাদেশ যেহেতু এখনো সুপার টুয়েলভ নিশ্চিত করতে পারেনি এবং পথটাও বেশ হিসেব-নিকেশের, তাই এমন পরিস্থিতিতে আগে কোয়ালিফাই করাই হবে মূল লক্ষ্য। তারপর হয়তো ম্যাচ ধরে ধরে এগোনোর লক্ষ্যস্থির করবে বাংলাদেশ। ...

ব্যাটে বাংলাদেশের ইনিংসের হাল ধরেন সাকিব

ক্রিকেট ক্রিকেট

ভিন্ন চোখে আমাদের সেরা

আমি, তুমি, সে, আপনি; আমরা সবাই তো সাকিবের ভক্ত। তাই না? মজার ব্যাপার হলো, সাকিবের এই ভক্ত-তালিকায় দেশ-বিদেশের অনেক নামজাদা তারকাও আছেন। কীভাবে দেখেন তাঁরা সাকিবকে?

ভিন্ন চোখে আমাদের সেরা

সাকিবের নতুন ইতিহাস

টি-টোয়েন্টি ইতিহাসের অন্যতম সেরা বোলার মালিঙ্গাকে পেছনে ফেলতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের চেয়ে বড় উপলক্ষ আর কী হতে পারত!

গতকাল নতুন রেকর্ড গড়েছেন সাকিব

ইস্টার্ন হাউজিং লিমিটেড

মিরপুরের ক্রিকেটপাড়ায় আধুনিক আবাস

কানায় কানায় পূর্ণ স্টেডিয়ামে টান টান উত্তেজনা। সাকিব আল হাসান ব্যাট করছেন, অপরাজিত ৭২ রানে। তিন বলে ছয় রান করতে পারলেই বাংলাদেশ সিরিজ জিতে যাবে। দেশের মাটিতে আরেকটি সিরিজ জয়ের উদ্‌যাপন করতে ...

মিরপুরের ক্রিকেটপাড়ায় আধুনিক আবাস

মালিঙ্গাকে টপকে টি-টোয়েন্টিতে সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি এখন সাকিব

আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে সাকিবের ১০৮তম উইকেট। বহুদিন ধরে ১০৭ উইকেট নিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সর্বোচ্চ উইকেটশিকারির মুকুট পরে ছিলেন মালিঙ্গা।

রেকর্ডের পর সাকিব

ক্রিকেট ক্রিকেট

টেলিফোনের সাকিব

সাকিবকে নিয়ে সবচেয়ে বড় সমস্যা টেলিফোনে। পেশার খাতিরে তাঁকে প্রায়ই ফোন করতে হয়। এবং এটা জেনেও যে অপর পাশে নির্লিপ্ত কণ্ঠ থাকবে। কোনো একটা কিছুর সোজা উত্তর জানতে কতভাবে যে ঘুরিয়ে করতে হয় প্রশ্ন নামের ...

টেলিফোনের সাকিব

আশার নাম সাকিব–মোস্তাফিজ

ইএসপিএন ক্রিকইনফোর একটি টুইটের দিকে দৃষ্টি রাখা যাক। আইপিএলের ‘এলিমিনেটর’ থেকে বিদায় নেওয়ার শঙ্কায় তখন কলকাতা নাইট রাইডার্স। শেষ ওভারে দরকার ৭ রান।

সাকিব-মোস্তাফিজ: বাংলাদেশের দুই আশার নাম

বিশ্বাস রেখো যে তোমরা পারবে...

জিততে হলে কী চাই? জীবনের পরীক্ষা আর অলিম্পিক কি বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার প্রতিযোগিতা এক নয়। জীবনের পরীক্ষায় ফলের আশা না করে কাজ করে যাওয়া ভালো। গন্তব্য নয়, পথকেই মোকাম করে তোলাটা শ্রেয়তর; তাতে ...

আমরাও পারি—এ বিশ্বাসটা থাকুক বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের

আমার দেশ, আমার দল

আমার সব সময়ই প্রত্যাশা থাকে, বাংলাদেশ দল ভালো করবে। বাংলাদেশ ভালো খেললেই শুধু বাহবা দেব, খারাপ খেললে চিনি না—আমি কখনোই এমন মানসিকতা পোষণ করি না। ভালো-খারাপ মিলিয়েই আমার দেশ, আমার দল।

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের ভালো–খারাপ, দুই সময়েরই সঙ্গী সুবর্ণা মুস্তাফা

টি–টোয়েন্টির রসায়ন আমরাও জানি

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মৌসুম যেহেতু, টি–টোয়েন্টি ক্রিকেট নিয়ে অনেক স্মৃতিই মনে উঁকি দিচ্ছে। বিশেষ করে মনে পড়ছে এই সংস্করণের ক্রিকেটে আমার শুরুর কথা। ২০০৬ সালের স্মৃতি।

শাহরিয়ার নাফীস
আরও